1. adnanfahim069@gmail.com : Adnan Fahim : Adnan Fahim
  2. admin@banglarkota.com : banglarkota.com :
  3. kobitasongkolon178@gmail.com : Liton S.p : Liton S.p
  4. miraz55577@gmail.com : মোঃ মিরাজ হোসেন : মোঃ মিরাজ হোসেন
  5. ridoyahmednews@gmail.com : Ridoy Khan : Ridoy Khan
  6. irsajib098@gmail.com : Md sojib Hossain : Md sojib Hossain
  7. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০৮:৪৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ

আপনার লেখা গল্প,কবিতা,উপন্যাস, ছড়া গ্রন্থ আকারে প্রকাশ করতে যোগাযোগ করুন। সাগরিকা প্রকাশনী ০১৭৩১৫৬৪১৬৪৷ কিছু সহজ শর্তে আমরা আপনার পান্ডুলিপি প্রকাশের দায়িত্ব নিচ্ছি।

কবিতাঃ ফরিয়াদ কলমেঃ অরুণ বর্মন।দৈনিক বাংলার কথা অনলাইন।

রিপোর্টার মোঃ মিরাজ হোসেন।
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩২ বার পড়া হয়েছে

দৈনিক কবিতা প্রতিযোগিতা
কবিতাঃ ফরিয়াদ
কলমেঃ অরুণ বর্মন
তারিখঃ ১৮/০৪/২০২১

হে ঈশ্বর
এখনও কেন নির্বিকার?
তুমি না অসহায়ত্বের ঈশ্বর,
দয়ার সাগর, করুণার সিন্ধু?
কেন এখনও নির্লিপ্ত, উদাসীন?
রুগ্ন পৃথিবীর কারিগর কেন আছে অন্ধ হয়ে?
তোমার সৃষ্টি আজ বারমুডা ট্রায়াঙ্গলে নিপতিত।
মহাজাগতিক মেঘ আচ্ছন্ন করেছে মহাবিশ্বকে।
নিয়ন আলোয় নিবু নিবু জ্বলছে পৃথিবীর সলতে।
সৃষ্টির সেরা জীব ধুঁকছে বাঁচার যন্ত্রণায়।

হে ঈশ্বর
তুমি কি শুনতে পাচ্ছ না ?
তোমার সৃষ্টির সেরা জীবের আর্তনাদ?
হাহাকার আর হাহাকার চারিদিকে শুধু হাহাকার।
মহামারীর হাহাকার, অসুস্থের হাহাকার,
অক্সিজেনের হাহাকার, মৃত্যুর হাহাকার।
ক্ষুধার হাহাকার, দারিদ্রের হাহাকার।
আজ পৃথিবীর সব জানালা দরজা বন্ধ।
গুমোট আর গুমোট চারিদিকে কেবল গুমোট গন্ধ।

হে ঈশ্বর
তুমি কি দেখতে পাচ্ছ না?
কীটের মত মরছে মানুষ।
হাসপাতালের বারান্দায়, এম্বুলেন্সের মধ্যে,
ক্লিনিকে, রাস্তায়, যানবাহনে মৃত্যু আর মৃত্যু।
চিকিৎসা নেই, ওষুধ নেই, অক্সিজেন নেই।
অসুস্থ হচ্ছে আর ছটফট করে মরছে।
কে কার দেবে চিকিৎসা! কে কার দেবে সেবা!
কি দুঃসহ মৃত্যু!
কি বিভৎস জীবন!
এত সহজ জীবনকে কেন এত কঠিন করে দিলে?
মৃত্যু তো একদিন হবেই তবে এমন মৃত্যু চাই না।
চারিদিকে শুধু মৃত্যুর মিছিলে লাশের শ্লোগান।

হে ঈশ্বর
তুমি যদি আমাকে এ মিছিলে সামিল কর
আমি কিন্তু মানব না তোমার গৎবাঁধা আইন
আমি যাব না অত সহজে যমপুরীর বদ্ধ গৃহে।
আমি ওঁৎপেতে বসে থাকব
তোমার কৈফিয়তের অপেক্ষায়।
নচিকেতা হয়ে জানতে চাইবো
কেন পৃথিবীর এ হাল করলে?
কেন শান্ত পৃথিবীকে উদ্ভ্রান্ত করলে?
কেন বোধহীন করতে চাইলে নীরব পৃথিবীকে?
দেখতে চাইব এত মৃত্যু তুমি কিভাবে
নীলকন্ঠ হয়ে হজম করে চলেছো?

হে ঈশ্বর
একি আমার গুরু পাপের গুরু দন্ড দিচ্ছ?
একদিন যে সবুজ কেটে অক্সিজেন ধ্বংস করেছি
একি তারই প্রতিদান?
একদিন যে বিবেক কেটে সম্রাজ্য গড়েছি
একি তারই প্রতিদান?
একদিন যে যৌথ পরিবার কেটে বন্ধ্যা হয়েছি
একি তারই প্রতিদান?
একদিন যে সাদা জল ছিঁড়ে কালো করেছি
একি তারই প্রতিদান?
একদিন যে নীলাকাশ ভেঙে সমুদ্র করেছি
একি তারই প্রতিদান?

হে ঈশ্বর
তবুও আর পারছি না
এবার ক্ষমা কর আমাকে, ক্ষমা কর, ক্ষমা কর।
এবার ফিরিয়ে নাও তোমার অভিশাপ
মুক্তি দাও নীলাকাশ, দক্ষিণা বাতাস, শান্ত প্রকৃতি।
ফিরিয়ে দাও আগের সেই সবুজ পৃথিবী।
ফিরিয়ে দাও সেই হাসি, আনন্দ, উৎসব।
হে ঈশ্বর
মুক্তি দাও, মুক্তি দাও, মুক্তি দাও।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী ও বই বিপণি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত