1. adnanfahim069@gmail.com : Adnan Fahim : Adnan Fahim
  2. admin@banglarkota.com : banglarkota.com :
  3. kobitasongkolon178@gmail.com : Liton S.p : Liton S.p
  4. miraz55577@gmail.com : মোঃ মিরাজ হোসেন : মোঃ মিরাজ হোসেন
  5. ridoyahmednews@gmail.com : Ridoy Khan : Ridoy Khan
  6. irsajib098@gmail.com : Md sojib Hossain : Md sojib Hossain
  7. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৮:০৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :

আপনার লেখা গল্প,কবিতা,উপন্যাস, ছড়া গ্রন্থ আকারে প্রকাশ করতে যোগাযোগ করুন। সাগরিকা প্রকাশনী ০১৭৩১৫৬৪১৬৪৷ কিছু সহজ শর্তে আমরা আপনার পান্ডুলিপি প্রকাশের দায়িত্ব নিচ্ছি।

নারী দিবস, পৃথক কি- কিছু ? …………………………………….. মো. আসাদুল হক।দৈনিক বাংলার কথা অনলাইন।

রিপোর্টার মোঃ মিরাজ হোসেন।
  • প্রকাশিত: সোমবার, ৮ মার্চ, ২০২১
  • ৬৭ বার পড়া হয়েছে

নারী দিবস, পৃথক কি- কিছু ?
……………………………………..

মো. আসাদুল হক
চাঁদপুর- ০৮.০৩.২০২১ খ্রি.

নর ঃ- হে নারী, আছে কি তব পা’য়ে তাঁবেদারীর
বেড়ি ? ফরমানও তো নেই তেমন জারী ।
পুর্ণতা যা তোমার, দান সবই তো বিধাতার ।
যুগের আবর্তে জন্মায় অধিকার, যোগ্যতায়
কেবলি অর্জন হয় স্বাধিকার ।
তাবৎ সংসার যার, নারী পেয়েছে অর্ধেক তার,
এর পরে নারী’র আর কোন্ সমাচার ?

নারী ঃ- এসেছি স্বর্গ পরিহরি কুড়ি । হে নর, ধরিত্রী
বিহারী যেমন তুমি, তেমনি নারী । তাঁবেদারি
উচ্চারি তোমরা নর’রা করো দুনিয়াদারী ।
তোমরা ভাবো, ঘরের নারী- বাইরে হতচ্ছাড়ি।
এমন কুলশ বাক্য ছুঁড়ি,চালাও জোরের ছুড়ি।
বিভৎসতায় পড়ি ভেঙ্গে চুড়ি ফলাও বাহাদুরি,
নোলক ছিড়ি রক্তাক্ত করি । তেঁই নারী রাস্তায়
দাঁড়ি ছুঁড়ে সমাচারের জুড়ি ।

ধরা জনক, ধরণী জননী
আদি হতে নর-নারী নিয়েছে চিনি
এর মাঝে নর-নারীর চলছে সব বিকিকিনি
কেউ কন্যা, বোন, ভাবী, জননী, স্ত্রী, ভাগিনী
কেউ ভাই, পুত্র ভাগিনা, স্বামী, পিতা জানি
এরাই সুদিনে দুর্দিনে করে কানাকানি
অবিরাম চলছে তাই মানামানি
কদাচিৎ ঘটেছে হানাহানি ;
আবার এই নর’ই, নারীর জন্য কিনেছে চিরুনী
বেঁধে দিয়েছে নর, নারী’র খোঁপা, বেণী
নারী’ও করেছে তার অবদানে- পুরুষ’কে ঋণী
কদরে টেনে নিয়েছে বুকে নারী- পুরুষের ডান হাতখানি
এমনি করে উভয়ে খুলেছে আনন্দের বিপণী
কেটে যাচ্ছে তাই করে করে দিবস রজনী ।

প্রকৃতির বিধানেও আছে নিধান
সেই সুযোগ গ্রহণ করে তৃতীয় পক্ষ শয়তান
তবে, মানুষেরা খুঁজেছে পদে পদে পেতে পরিত্রাণ
এরি মাঝে কখনো নারী, কখনো পুরুষ হয়েছে মহান।

যতো মনুষ্য সৃষ্টি গরল মন্দ কলতান
তাতে রয়েছে যেমন পুরুষ, তেমনি নারী
নির্মমতায় কখনো গেছে নারীর প্রাণ
কখনো গাইতে হয়েছে পুরুষে, মৃত্যুর গান ।

মনের সত্বাধিকারি সমান সমান নারী পুরুষ
উভয়েই করে জীবন চলায় কমবেশি দোষ
ভুলের ঊর্ধ্বে নেই কোন মানুষ
পুরুষ নারী সময়ে, উভয়েই সাজে রঙ্গিন ফানুস ।

প্রকৃতির প্রদত্ত গড়ন, সাদা কালো বরণ
জন্ম কেনো নারী, কেনো পুরুষ ? কে বলবে সে কারণ ?
তাতে যদি জাগে অসন্তুষ্টি, নিশ্চয়ই তা অকারণ
এমন জিজ্ঞাসার মন’কে, করো তুমি বারণ ।

অধিকার চেওনা ; অধিকারের চাষাবাদ করো
চাইতে গিয়েই ছোট হয়েছো, কেঁপেছো থরথর
হে নারী- আপন সত্বায় সাহস সঞ্চারো
কর্ণধার ভেবে, নিজ হাতে হাল ধরো ।

মনের বিবাদ, মন মাত্রই আছে, থাকবে
এমন বিবাদ ঝড়ে, কিছু ডালপালা ভাঙ্গবে
আবার নতুন কিশলয় গজাবে
অভিমান ভাঙ্গবে, আবার মিলনের সুর বাজবে ।

নারী দিবস, পৃথক কি কিছু ?
জোর করে কাউকে, করানো কি মাথা নীচু ?
দেখা যায়- নারী পুরুষে ভাগ করে খেতে একটি লিচু
অনুরাগের টানে উভয়েই দৌড়ায়, উভয়ের পিছু ।

দিবসটি শুধু নারীর হলে ; দিবসটি শুধু পুরুষের হলে
রাত্রি যাবে নিশ্চয়ই বিফলে
কার কোলে পড়বে তবে মন গলে ?
কেনো প্রেমের ঘাটতি ঘটাবো- নারী,পুরুষ দিবস বলে ?

শান্ত হও পুরুষ, শান্ত হও নারী
তোমরাই বানিয়েছো যতো ঘর বাড়ি
বসবাস কালে একটু আধটু থাকবেই আড়ি
তাতেও যে শক্ত হয় প্রণয়ের দড়ি ।

আলো দিয়ে মিহির, শশীরে হেরে যামিনী চন্দ্রিমায়
শশধরও শর্বরী ভর, ভানুরে চন্দ্রিমা বিলায়
নীরদ থাকবেই অম্বরে নিজ ভঙ্গিমায়
তাতে চাঁদ সুরুজের কি-ই বা আসে যায় ?
ইন্দু ভাস্কর থাকে যার যার জায়গায়
নারী-পুরুষ, পুরুষ-নারী তেমনি থাকবে বসুধায় ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী ও বই বিপণি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত