1. adnanfahim069@gmail.com : Adnan Fahim : Adnan Fahim
  2. admin@banglarkota.com : banglarkota.com :
  3. kobitasongkolon178@gmail.com : Liton S.p : Liton S.p
  4. miraz55577@gmail.com : মোঃ মিরাজ হোসেন : মোঃ মিরাজ হোসেন
  5. ridoyahmednews@gmail.com : Ridoy Khan : Ridoy Khan
  6. irsajib098@gmail.com : Md sojib Hossain : Md sojib Hossain
  7. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৫২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :

আপনার লেখা গল্প,কবিতা,উপন্যাস, ছড়া গ্রন্থ আকারে প্রকাশ করতে যোগাযোগ করুন। সাগরিকা প্রকাশনী ০১৭৩১৫৬৪১৬৪৷ কিছু সহজ শর্তে আমরা আপনার পান্ডুলিপি প্রকাশের দায়িত্ব নিচ্ছি।

ওরা কথা রাখে না কলমে : অরুণ কুমার ঘোষ।দৈনিক বাংলার কথা অনলাইন।

রিপোর্টার মোঃ মিরাজ হোসেন।
  • প্রকাশিত: বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১
  • ৪৯ বার পড়া হয়েছে

কবিতা : ওরা কথা রাখে না

কলমে : অরুণ কুমার ঘোষ
তারিখ : ০৩-০৩-২০২১

সেবার ইলেকশনের আগে
রাজনীতির এক দাদামশাই
পাড়ায় ঢুকে হাতজোড় করে
বিনয় প্রকাশ করে।
বলি – দাদামশাই, বেকার ছেলে আমি
খাটতে পারি, আমার কিছু হবে?
দাদামশাই হাসিমুখে বলেছিল –
খোকাবাবু, ইলেকশনে জিতলে পরে
এই অ্যাত্ত বড়ো চাকরি তোমায় দেবো।
# # # # #
সেবার জান দিয়ে লড়ে গেলাম
দাদামশাই ইলেকশনে জিতে গেল।
এম এল এ হলো।
একদিন হাসিমুখে তার কাছে গিয়ে বলি –
দাদামশাই, এবার আমায় চাকরি দাও।
হোয়াট’স! হু আর ইউ?
বলে এমন জোরে ধমক দিলে —-
পালানোর আর পথ পাইনে!
অনেক আশা নিয়ে গিয়েছিলাম
চিনতেই তুমি পারলে না!
কপালে জুটলো তোমার অহেতুক ধমক।
বাড়ি ফিরি বুকভরা ব্যথা নিয়ে।
দাদামশাই, বলতে পারো –
আর কত ধমক খাবো?
আর কতদিন মিথ্যা কথায় ভোলাবে?
# # # # #
না দাদামশাই, এখানেই শেষ নয় –
ঠিক আড়াই বছর পরে আবার তুমি এলে।
সামনেই লোকসভা নির্বাচন –
এম পি হবে বলে।
নির্লজ্জ-বেহায়া-অবিবেচক তুমি
পাঁচ বছরের মেয়াদ শেষ না করেই –
এম পি টিকিটে লড়তে নামলে!
# # # # #
আবার এলে আমার কাছে
হাতজোড় করে কাচুমাচু করে বললে-
খোকাবাবু,সেদিন তোমায় চিনতে পারিনি।
ম্লান হেসে বলি – না চেনাই তো ধর্ম দাদামশাই!
অহেতুক ধমক-খাওয়া জীব যে আমরা!
বলেছিলে – ছি: খোকাবাবু! ওকথা বলোনা আর!
আমি লজ্জিত-অনুতপ্ত ক্ষমা করো এবারের মতো।
# # # # #
হ্যাঁ দাদামশাই, তোমাকে ক্ষমা করে দিয়েছিলাম।
বললে তুমি – এম পি আগে হই –
প্রতিজ্ঞা করছি – চাকরি তোমায় দেবোই দেবো।
# # # # #
দাদামশাই, জান দিয়ে লড়ে যাই
জোয়ানগুলোকে বোঝাই দিনরাত।
খাওয়া-দাওয়া-ঘুম সিকেয় তুলে ছুটি আর ছুটি!
তুমি জিতে গেলে, হলে এম পি।
ভুলে গেলে আবার আমার কথা।
দাদামশাই, তুমি আর কতবার এম পি হলে আমি চাকরি পাবো – আমায় বলতে পারো?
বলতে পারো – আমার এক্সচেঞ্জ-কার্ড
আর কতদিন আমার অপেক্ষায়
দাঁড়িয়ে থাকবে অফিসে?
# # # # #
জানো দাদামশাই –
দশটা বছর তোমার অপেক্ষায় কেটে গেল!
যৌবনে যোগী হয়ে গেলাম।
অকালেই বার্ধক্যের হাতছানি।
হতাশার কালো ধোঁয়া আমার চোখের অঞ্জন!
সকলেই অবজ্ঞা উপহার দেয়।
দাদামশাই! রাখলে না কথা!
তোমরা কেউ কথা রাখো না।
অনিতাও কথা দিয়েছিলো
তুমি রাখলে না বলে সেও রাখেনি!
একদিন দেখি – অমিতের হাতে তার হাত।
আঁতকে উঠি! চিৎকার করে বলি-
অনিতা! তুমি এ কী করলে?
হেসে বলে – কী আর করবো বলো!
বুনো-হাঁসের পেছনে ছুটে লাভ কি কিছু আছে?
# # # # #
ঘাড় হেট করি ঘরে ফিরে আসি।
দাদামশাই, তুমি বলতে পারো-
আর কতবার তুমি এম এল এ, এম পি হলে –
আমি চাকরি পাবো? ফিরে পাবো যৌবন?
আর অনিতা ধরবে আমার হাত?

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী ও বই বিপণি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত