1. adnanfahim069@gmail.com : Adnan Fahim : Adnan Fahim
  2. admin@banglarkota.com : banglarkota.com :
  3. kobitasongkolon178@gmail.com : Liton S.p : Liton S.p
  4. miraz55577@gmail.com : মোঃ মিরাজ হোসেন : মোঃ মিরাজ হোসেন
  5. ridoyahmednews@gmail.com : Ridoy Khan : Ridoy Khan
  6. irsajib098@gmail.com : Md sojib Hossain : Md sojib Hossain
  7. zahiruddin554@gmail.com : Md. Zahir Uddin : Md. Zahir Uddin
শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ১১:০৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ

আপনার লেখা গল্প,কবিতা,উপন্যাস, ছড়া গ্রন্থ আকারে প্রকাশ করতে যোগাযোগ করুন। সাগরিকা প্রকাশনী ০১৭৩১৫৬৪১৬৪৷ কিছু সহজ শর্তে আমরা আপনার পান্ডুলিপি প্রকাশের দায়িত্ব নিচ্ছি।

উপন্যাসঃ নীলা লেখিকাঃ ফারহানা আক্তার।বাংলার কথা অনলাইন।

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৫৬ বার পড়া হয়েছে

সমুদ্রে বিশাল সব জলরাশি, ভয়ঙ্কর ঢেউ, তর্জন-গর্জন করা যার স্বভাব।
মধ্যখানি শান্ত, তীরের কাছে এসে ভয় দেখানাে। নির্বাক, অমায়িক তীরের
মাটিকে নিজের বলে গ্রাস করে নেওয়া। এই মাটির বেঁচে থাকার ইচ্ছে ছিল,
অপরকে সুখ দেওয়ার তার বড় ইচ্ছে। অপরকে একটু রক্ষা করতে গিয়ে নিজেকে
হারাতে হয় জলের গভীরে। তবু অশান্ত সমুদ্র না পারে শান্ত হতে। সে উত্তাল
হাতে আরাে উত্তাল, ভয়ঙ্কর হতে আরাে ভয়ঙ্কর হয়। তার ক্রোধের শেষ নেই,
কোথায় যেন খুবই দুঃখ, কোথায় যেন তীব্র যন্ত্রণা তাই বুকফাটা চিকার। একটু
সান্ত্বনার জন্য তীরে এসে ভীড় করা। তা নিষ্প্রাণ মাটির এতাে সাধ্য নেই কারাের
সীমাহীন, অসীম দুঃখকে নিজের করে নেওয়ার। তাই বিলীন হওয়া।
সবকিছু ঠিক আছে। যে যার মতাে চলার সে চলছে। যে যা করার তা করছে।
ও চলে যাওয়ার প্রায় দুই বছর, অভিমানে ব্রোনাে একবারও এলাে না। কত
বললাম তাও আসবে না। গ্র্যাজুয়েশন কমপ্লিট করলাে, আকাশেও উড়লাে
তারপরও এলাে না। নাটকীয় ভাবে যখন দেশে ফ্লাইট শিডিউলই পড়ে গেল তখন
সবাই বললাম, হয়তাে ওর আত্মা তােকে আসতে চাইছে প্লিজ এইবার না বলিস না ।
। সবার মিনতিতে রাজি হলাে। রিসিভ করলাম তাকে এয়ারপাের্ট গিয়ে।
গেলাম আটজন, হলাম নয়জন, পারলাম না দশজন হতে। হয়তাে ওর অদৃশ্য
আত্মা এসেছিল রিসিভ করতে, কি জানি হয়তো চোখ দিয়ে সুখের অশ্রু ঝরেছিল,
হেসেছিল হয়তো কান্নাভরা চোখে দুঃখী ছেলেটার অভিমানে। সব মিলিয়ে
পাঁচ বছরে ব্রুনাে আসলো আমাদের কাছে ফিরে। যেৱকম হৈ হুল্লোড়, নাচানাচি
করার কথা তার কিছুই হয় নি। নীলা চলে গেল প্রায় দুবছর হলাে তারপর
আমাদের আর পার্টি করা হয় নি। সবকিছুই যেন আমাদের ওর ছিল, যাওয়ার
কালে যেন নির্ভুল হিসেব কষে সব নিয়ে গেল। ওর ছায়া ঘেরা দেয়ালে আজও
আমরা সবাই বন্দী। খুঁজে ফিরি প্রতিটা পদচিহ্নে, নিঃশ্বাসে।
ভাবি শুধু এইসব না
হয়ে তো অন্য কিছু হতে পারতো তবে এটাই কেন হলাে।

ও ঠিকই বলেছিল
সেদিন, ভালােবাসা বিষধর সাপের চেয়েও বিষাক্ত, সময়ের মতোই অমর। আজ
বুঝতে পারি যথন দু’টি বৎসর পরও সে আমাদের নিঃশ্বাসে বাস করে। এর
নিঃশব্দ, মিষ্টি হাসিগুলো চেপে ধরে বারেবারে আমাদের।
তৃণা অডিশন দিল, চান্স পেল, দুদিন পর প্রথম মুভি বের হবে। ব্রুনাে আকাশে
উড়লাে, দেশেও আসলাে। প্রিয়া তাঁর বাবার এসিস্ট্যান্ট হলাে। নীলা না দেখলাে
তৃণার অডিশন, না দেখবে মুভিটা, না দেখলে ব্রুনোর আসা আর প্রিয়ার
এসিস্ট্যান্ট হওয়া। সে শুধু হয়ে রইলাে আমাদের নীশ্বাস….

নাম : নীলা
লেখিকা : ফারহানা আক্তার
ধরন : উপন্যাস
প্রকাশনী : ইচ্ছে স্বপ্ন প্রকাশনী
প্রথম প্রকাশ : বইমেলা 2021

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী ও বই বিপণি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত