1. admin@banglarkota.com : admin :
  2. jakariaborkoth@gmail.com : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত
  3. adnanfahim069@gmail.com : মোঃ আবরার ফাহিম : মোঃ আবরার ফাহিম
  4. mdmamunhossen1222@gmail.com : মোঃ মামুন হোসেন : মোঃ মামুন হোসেন
  5. nahidadnan124@gmail.com : নাহিদ হোসেন নিরব : নাহিদ হোসেন নিরব
  6. ridoyahmed.news@gmail.com : মোঃ হৃদয় আহমেদ : মোঃ হৃদয় আহমেদ
  7. irsajib098@gmail.com : মোঃ সজীব হোসেন : মোঃ সজীব হোসেন
ডাকাতি হওয়া উথলী সোনালী ব্যাংক পরিদর্শন করলেন অতিরিক্ত ডি আই জি পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসক।দৈনিক বাংলার কথা। - Banglar Kota
বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১২:৪৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
আপনি কি গল্প, কবিতা, ছড়া, উপন্যাস লেখেন? কিন্তু প্রকাশের কোন মাধ্যম পাচ্ছেন না? কিছু সহজ শর্ত সাপেক্ষে সাগরিকা প্রকাশনী প্রকাশ করবে আপনার স্বপ্নের গ্রন্থটি। যোগাযোগঃ ০১৭৩১৫৬৪১৬৪

ডাকাতি হওয়া উথলী সোনালী ব্যাংক পরিদর্শন করলেন অতিরিক্ত ডি আই জি পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসক।দৈনিক বাংলার কথা।

Reporter Name
  • প্রকাশিত : সোমবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫৪ বার পড়া হয়েছে

ডাকাতি হওয়া উথলী সোনালী ব্যাংক পরিদর্শন করলেন অতিরিক্ত ডি আই জি পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসক।দৈনিক বাংলার কথা।

ইসরাফিল হোসেন (নীরব)
বিশেষ প্রতিনিধিঃ

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর থানাধীন উথলী বাজারে অবস্থিত সোনালী ব্যাংকের উথলী শাখা থেকে গতকাল ১৫ নভেম্বর, লাঞ্চের সময় দুপুর অনুমান ০১:০০ ঘটিকা সময় ০৩জন দুস্কৃতিকারী মাথায় হেলমেট, মাস্ক ও পিপিই পরিহিত অবস্থায় খেলনা অস্ত্রের মুখে নিরস্ত্র আনসার সদস্য, ব্যাংক কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জিম্মি করে নগদ প্রায় নয় লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। মোটরসাইকেল যোগে ব্যাংক থেকে টাকার ব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা তাদের বাধা দিতে গেলে দুস্কৃতিকারীরা তাদের উপর খেলনা পিস্তল তাক করলে স্থানীয়রা প্রাণভয়ে পিছু হটে।

ঘটনার সংবাদ পেয়ে সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম মহোদয় চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের সকল ইউনিটকে প্রত্যেকটি লোকাল ও হাইওয়ে রাস্তায় চেকপোস্ট বসিয়ে দুষ্কৃতিকারীদের আটকানোর জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালায়।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন জনাব এ কে এম নাহিদুল ইসলাম, বিপিএম, অতিরিক্ত ডিআইজি (ক্রাইম এন্ড অপারেশনস্) খুলনা রেঞ্জ, খুলনা, জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম সরকার, পুলিশ সুপার মোঃ জাহিদুল ইসলাম সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা সার্কেল) জনাব মোঃ আবু রাসেল সহ জেলা পুলিশ ও সোনালী ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন কালে অতিরিক্ত ডিআইজি মহোদয়ের বলেন, এটা একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা, ঘটনার সাথে যারা জড়িত আছে অচিরেই তাদেরকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হব ইনশাল্লাহ। পুলিশ সুপার মহোদয় বলেন, ঘটনার সময় আনসার সদস্যরা নিরস্ত্র ছিল সেই সুযোগ দুস্কৃতিকারীরা কাজে লাগিয়েছে। ব্যাংকে যদি সিসি ক্যামেরা থাকতো তাহলে অপরাধীদের শনাক্ত করা অনেক সহজ হতো। দুস্কৃতিকারীদের ফেলে যাওয়া খেলনা পিস্তলের অংশবিশেষ, পিপিই উদ্ধার করা হয়েছে। দুষ্কৃতিকারীদের ব্যবহৃত ব্যবহৃত পিস্তল খেলনা ছিল। অপরাধীদের গ্রেপ্তার করার জন্য চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ তৎপর রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী | সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব