1. admin@banglarkota.com : admin :
  2. jakariaborkoth@gmail.com : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত
  3. adnanfahim069@gmail.com : মোঃ আবরার ফাহিম : মোঃ আবরার ফাহিম
  4. mdmamunhossen1222@gmail.com : মোঃ মামুন হোসেন : মোঃ মামুন হোসেন
  5. nahidadnan124@gmail.com : নাহিদ হোসেন নিরব : নাহিদ হোসেন নিরব
  6. ridoyahmed.news@gmail.com : মোঃ হৃদয় আহমেদ : মোঃ হৃদয় আহমেদ
  7. irsajib098@gmail.com : মোঃ সজীব হোসেন : মোঃ সজীব হোসেন
নাতনিকে ধর্ষণের অভিযোগে দাদা আটক - Banglar Kota
মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৮:২৫ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
আপনি কি গল্প, কবিতা, ছড়া, উপন্যাস লেখেন? কিন্তু প্রকাশের কোন মাধ্যম পাচ্ছেন না? কিছু সহজ শর্ত সাপেক্ষে সাগরিকা প্রকাশনী প্রকাশ করবে আপনার স্বপ্নের গ্রন্থটি। যোগাযোগঃ ০১৭৩১৫৬৪১৬৪

নাতনিকে ধর্ষণের অভিযোগে দাদা আটক

হৃদয় আহম্মেদ
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০
  • ১০৬ বার পড়া হয়েছে

নাতনিকে ধর্ষণের অভিযোগে নানা আটক

হৃদয় আহম্মেদ স্টাফ রিপোর্টারঃ

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বেগমপুর ইউনিয়নের হরিশপুর গ্রামের কমিউনিটি ক্লিনিক পাড়ার দাদার বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে দাদা কর্তৃক ৭ বছর বয়সের নাতনী ধর্ষনের শিকার হয়েছে।

গত মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) অতি সকালের দিকে এ ধর্ষনের ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে ধর্ষিতা শিশুর মা বাদি হয়ে দর্শনা থানায় লম্পট দাদার বিরুদ্ধে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করে।

গতকাল বুধবার (২৮ অক্টোবর) দর্শনা থানা পুলিশ উক্ত মামলার অভিযান চালিয়ে ধর্ষক দাদা মোঃ মুনতাজ হোসেন (৫৫) গ্রেফতার করেছে।

মামলাসূত্রে জানাগেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় বেগমপুর ইউনিয়নের নদাগাঁ-হরিশপুর গ্রামের মুনতাজ আলীর ছেলে হাফিজুল ইসলামের সাথে একই ইউনিয়নের উজলপুর বিলপাড়ার আসমা বেগমের পারিবারিক ভাবে বিবাহ হয়। আছমা বেগম বিবাহের পর থেকে স্বামী হাফিজুলের সাথে হরিশপুর গ্রামের কমিউনিটি ক্লিনিকের পাশে শ্বশুর মুনতাজের বাড়িতে বসবাস করে আসছিলো। বসবাসের কয়েক বছর পর থেকে লম্পট শশুর আসমা বেগমকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো।

পরে আসমা খাতুন তার স্বামী হাফিজুলের কাছে বিষয়টি বললে আসমা খাতুনের পিতার বাড়ি উজলপুর বিলপাড়ায় এসে হাফিজুল ও আসমা বসবাস শুরু করে। এ দির্ঘ সময়ে আসমা খাতুনের শিশু কন্যা হরিশপুর গ্রামে দাদা মুনতাজের বাড়িতে প্রায়ই বেড়াতে যেত। এরই ধারাবাহিকতায় গত সোমবার আসমা খাতুনের শিশু কন্যা হরিশপুর গ্রামে দাদা মুন্তাজের বাড়িতে বেড়াতে যায়। গত মঙ্গলবার ভোর ৬টার দিকে শিশু কন্যার দাদী পুকুরে গুগলী তুলতে যাওয়ার সুজগে বাড়িতে কেউ না থাকায় দাদা মুনতাজ শিশু কন্যা নাতনীকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। পরে গতকাল দুপুরের দিকে শিশু কন্যা তার মা আসমা খাতুনকে বিষটি বললে আসমা খাতুন বিকাল ৫টার দিকে দর্শনা থানায় এসে নিজে বাদী হয়ে তার শশুর লম্পট মুনতাজের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষন মামলা দ্বায়ের করে। পরে গতকাল সন্ধা ৭টার দিকে দর্শনা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক লম্পট দাদা মুনতাজকে আটক করেছে

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী | সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব