1. admin@banglarkota.com : admin :
  2. jakariaborkoth@gmail.com : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত
  3. adnanfahim069@gmail.com : মোঃ আবরার ফাহিম : মোঃ আবরার ফাহিম
  4. ridoyahmed.news@gmail.com : মোঃ হৃদয় আহমেদ : মোঃ হৃদয় আহমেদ
  5. irsajib098@gmail.com : মোঃ সজীব হোসেন : মোঃ সজীব হোসেন
শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
আপনি কি গল্প, কবিতা, ছড়া, উপন্যাস লেখেন? কিন্তু প্রকাশের কোন মাধ্যম পাচ্ছেন না? কিছু সহজ শর্ত সাপেক্ষে সাগরিকা প্রকাশনী প্রকাশ করবে আপনার স্বপ্নের গ্রন্থটি। যোগাযোগঃ ০১৭৩১৫৬৪১৬৪

নওগাঁ জেলায় বিএনপির সভায় হামলা অভিযোগ।দৈনিক বাংলার কথা।

Reporter Name
  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৩৬ বার পড়া হয়েছে

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ মোঃ রাজিব হোসেন
*অনলাইন ডেক্স*

নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থী শেখ রেজাউল ইসলাম রেজুর নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, মারধর ও হুমকির অভিযোগ করেছে জেলা বিএনপি।

শুক্রবার নওগাঁ শহরের কেডির মোড় দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে নেতারা এই অভিযোগ করেন।

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক মাস্টার হাফিজুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন, নির্বাচন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকালে রানীনগর উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়। সকাল থেকেই এই সভায় অংশগ্রহণে আসা দলীয় নেতাকর্মীদের বাধা দেওয়া হচ্ছিল।

এ সময় উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেনের নেতৃত্বে ২৫-৩০ জনের একটি দল আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর দফায় দফায় হামলা চালায়। এতে উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আতিকুল ইসলাম ও মোশাররফ হোসেন, স্থানীয় বিএনপি নেতা শেখ মনোয়ার হোসেনসহ ১০-১২ নেতাকর্মী আহত হন।

হাজিফুর রহমান আরও অভিযোগ করেন, নির্বাচনের মাঠ থেকে তাড়িয়ে দিতে তারা (আওয়ামী নেতাকর্মী) অব্যাহতভাবে হুমকি-ধমকি দিয়ে যাচ্ছে। নির্বাচনে সুষ্ঠু পরিবেশ দাবি করে আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ-৬ আসনের বিএনপির মনোনীত প্রার্থী শেখ রেজাউল ইসলাম, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক নাসির উদ্দিন আহমেদ ও অ্যাডভোকেট এ জেড এম রফিকুল আলম, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আমিনুর রহমান বেলাল, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মামুনুর রহমান রিপন ও রানীনগর উপজেলা বিএনপির নেতারা।

উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মো. আনোয়ার হোসেন হেলাল হামলা ও হুমকি-ধমকির অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেন। তিনি বলেন, বিএনপির নেতাকর্মীরা সংঘবদ্ধ হয়ে আমার কর্মী-সমর্থকদের ওপর হামলা চালিয়েছে। তাদের হামলায় ফখরুল ইসলাম নামে একজনসহ ১০-১৫ কর্মী আহত হয়েছেন। নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্টের চেষ্টা করছে তারা।

রানীনগর থানার ওসি মো. জহুরুল হক জানান, গত বৃহস্পতিবার বিএনপির বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে উপজেলা সদরে উত্তেজনা দেখা দেয়। তবে পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী | সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব