1. admin@banglarkota.com : admin :
  2. jakariaborkoth@gmail.com : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত
  3. adnanfahim069@gmail.com : মোঃ আবরার ফাহিম : মোঃ আবরার ফাহিম
  4. ridoyahmed.news@gmail.com : মোঃ হৃদয় আহমেদ : মোঃ হৃদয় আহমেদ
  5. irsajib098@gmail.com : মোঃ সজীব হোসেন : মোঃ সজীব হোসেন
বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
আপনি কি গল্প, কবিতা, ছড়া, উপন্যাস লেখেন? কিন্তু প্রকাশের কোন মাধ্যম পাচ্ছেন না? কিছু সহজ শর্ত সাপেক্ষে সাগরিকা প্রকাশনী প্রকাশ করবে আপনার স্বপ্নের গ্রন্থটি। যোগাযোগঃ ০১৭৩১৫৬৪১৬৪

কৃষি কর্মকর্তার ঘুষ নেয়ার ভিডিও ভাইরাল।দৈনিক বাংলার কথা।

Reporter Name
  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৩৭ বার পড়া হয়েছে

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ মোঃ রাজিব হোসেন
*অনলাইন ডেক্সঃ

নওগাঁ জেলার রাণীনগর উপজেলায় কৃষি অফিসের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে সরকারি চাকরি দেওয়ার লোভ দেখিয়ে ৯ লাখ ১৫ হাজার টাকা ঘুষ নেওয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

এ ঘটনার পর ভুক্তভোগীর পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়াই তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছে তিন সদস্যের কমিটি।

নাছিমুজ্জামান জানান, ২০১৮ সালের ২৩ জানুয়ারি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা পদে ১ হাজার ৬৫০ জন লোক নিয়োগ দেওয়া হবে৷ এ মর্মে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এ খবর পেয়ে জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার যোগীভিটা গ্রামের রফিকুল আলমের ছেলে নাছিমুজ্জামান আবেদন করেন। উক্ত পদে চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ভাইভা পরীক্ষার আগে ও পরে কয়েক দফায় নওগাঁর রাণীনগরের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেনে চেকের মাধ্যমে ৯ লাখ ১৫ হাজার টাকা ঘুষ নেন। কিন্তু উক্ত পদে চাকরি না হওয়ায় নাসিমুজ্জামান ঘুষ গ্রহণকারী আনোয়ার হোসেনের কাছে টাকা ফেরত চান। অভিযুক্ত কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন টাকা ফেরত না দিয়ে নাসিমুজ্জামানকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি-ধমকি দেওয়া শুরু করেন।

তিনি আরও বলেন, বাধ্য হয়ে গত ১৭ আগস্ট কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের রাজশাহী অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। ইতিমধ্যে ঘুষ লেনদেনের সংক্রান্ত তথ্য-উপাত্ত অডিও, ভিডিও, ব্যাংক চেকের ছায়ালিপি, ঘুষের টাকা এক ব্যাংকের হিসাব নম্বর থেকে অন্য ব্যাংকে স্থানান্তরের ব্যাংকিং চ্যানেলের স্লিপ, ভুক্তভোগীর লিখিত অভিযোগ, আমাদের হাতে এসেছে।

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন মোবাইল ফোন রিসিভ না করায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

৩ সদস্য বিশিষ্ট গঠিত তদন্ত কমিটির আহবায়ক আত্রাই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কেএম কাউছার হোসেন বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন নওগাঁ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক বরাবর পাঠানো হয়েছে।
আংশিক তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার কথা জানিয়ে নওগাঁ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ছামছুল ওয়াদুদ বলেন, বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে, পুরো কাগজপত্র হাতে পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী | সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব