1. admin@banglarkota.com : admin :
  2. jakariaborkoth@gmail.com : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত
  3. adnanfahim069@gmail.com : মোঃ আবরার ফাহিম : মোঃ আবরার ফাহিম
  4. ridoyahmed.news@gmail.com : মোঃ হৃদয় আহমেদ : মোঃ হৃদয় আহমেদ
  5. irsajib098@gmail.com : মোঃ সজীব হোসেন : মোঃ সজীব হোসেন
গল্প :অদ্রিতি part:14 লেখক:Adnan Fahim Khan (Abrar)।দৈনিক বাংলার কথা। - Banglar Kota
শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
আপনি কি গল্প, কবিতা, ছড়া, উপন্যাস লেখেন? কিন্তু প্রকাশের কোন মাধ্যম পাচ্ছেন না? কিছু সহজ শর্ত সাপেক্ষে সাগরিকা প্রকাশনী প্রকাশ করবে আপনার স্বপ্নের গ্রন্থটি। যোগাযোগঃ ০১৭৩১৫৬৪১৬৪

গল্প :অদ্রিতি part:14 লেখক:Adnan Fahim Khan (Abrar)।দৈনিক বাংলার কথা।

মো.আবরার ফাহিম
  • প্রকাশিত : সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৭৪ বার পড়া হয়েছে

গল্প :অদ্রিতি
part:14
লেখক:Adnan Fahim Khan (Abrar)

উঠে দেখলাম তাজরি আমার রুমে এসে আমার মাথার কাছে এসে বসেছে।আমি তো অবাক হয়ে গেলাম।ও এখন এখানে কি করছে।তাজরিকে দেখেই বিছানা থেকে লাফ দিয়ে উঠে গেলাম।

–আপনি এখানে কি করছেন???
–চা নিয়ে এসেছিলাম।(চা এগিয়ে দিয়ে।)
–আমি চা খায় না,ধন্যবাদ।
–কিন্তু আপনি কেন চা নিয়ে এসেছেন।
–কিছু দিন পর তো সব আমাকেই সামলাতে হবে,তাই আগে থেকে সব গুছিয়ে নিচ্ছি।
–মানে।আপনি এসব কি বলছেন।(অবাক হয়ে যাচ্ছি ওর প্রতিটা কথায়)
–কিছু না না বুঝলে আমার কিছু করার নাই।

চা নিয়ে চলে গেল।আমি ভাবনায় ঠুকে গেলাম,কি বলছে মেয়েটা আর কি বোঝাতে চাচ্ছে??এসব ভাবতে লাগলাম।হঠাৎ অদ্রিতি কফি হাতে রুমে ঠুকল।

–এই নে তোর কফি।
–আপনি আনতে গেলেন কেন??
–একটা কথা বলতে এসেছি।
–কি কথা??
–তুই তাজরির সাথে বেশি কথা বলবি না।ওর সাথে মিশবি না বুঝলি।
–হ্যাঁ। কিন্তু কেন??
–তোকে যা বলেছি তাই করবি।যদি কিছু ব্যতিক্রম দেখি তোর খবর আছে।
–রাত আটটার খবর নাকি??(বলেই হাসতে লাগলাম)
–দেখ…….
–আচ্ছা ঠিক আছে।

ও চলে যেতেই তাজরি আবার আসল কফি নিয়ে।

–আপনি আবার।
–আপনার কফি নিয়ে এসেছি।
–কফি লাগবে না।পেয়ে গেছি।
–কে দিল??
–অদ্রিতি।
–না আপনি ওটা খাবেন না।
–কেন??
–কারণ আপনি আমারটা খাবেন।
–কেন আমি তো কফি খাচ্ছি!!
–দেখেন না খেলে কিন্তু আমি….(বলেই কান্না করে দিল)
–আচ্ছা ঠিক আছে।আমি আপনারটাই খাব দেন।

ও হাত বাড়িয়ে কাপটা আমার হাতে দিল।আমি কফিটা নেওয়াতে ও যা খুশি হলো দেখে মনে হচ্ছে অদ্রিতি হাসছে।অদ্রিতির হাসি মাখা সেই মিষ্টি মুখটি বারবার চোখের সামনে ভেসে উঠছে।আমার সকল কষ্টের অবসান ওর হাসি।

তাইতো আমি বারবার বলি

“”আমার আকাশে তুৃমি ছাড়া
নেই কোন চাঁদ না প্রতাপ,
তোমার অম্লান সৌন্দর্য ছাড়া
আমার কোন নিরাময় নেই।
তোমার ওই কাজল মাখা-
দীঘল হরিণির চোখে,
মত্তলোকের সকল সুখ
খুজে পাই।
তোমার ওই মিষ্টি হাসিটা দেখে
পৃথিবীর সকল কষ্ট ভুলে থাকা
যায়।
তুৃমিই তো আমার একমাত্র
চাওয়া পাওয়া।””

–আচ্ছা আপনি এত কি ভাবছেন??(আমার কাধে হাত রেখে তাজরি বলছে)
–কিছু না তো।
–আচ্ছা উঠে ফ্রেশ হয়ে নেন।

তাজরি চলে গেল।আমি উঠে ফ্রেশ হয়ে বাহিরে এলাম।দেখলাম সবাই ড্রইং রুমে বসে গল্প করছে।আমাকে দেখে আমার ছোট বোনটি ছুটে আমার কাছে চলে এলো।এসে বলল

–ভাইয়া আপু তোমাকে ডাকছে।
–কোথায়??
–ছাদে।
–কেন ডাকছে??
–জানি না।

আমি ছাদে চলে গেলাম।ছাদে উঠেই দেখি অদ্রিতি এক কোণে দাড়িয়ে আছে।অবশ্য আমার দিকে পিছন করে।আমি ওর কাছে আসতেই বলল

–শোন তোকে যা বলব মন দিয়ে শুনবি।(আমার দিকে না তাকিয়েই)
–আচ্ছা ঠিক আছে।
–তাজরি তোকে ভালোবাসে আর আমি চাই না তুই ওকে কষ্ট দিস।
–কি বলছেন আপনি এসব??
–হ্যাঁ আমি যা বলছি একদম ঠিক বলছি!!
–কিন্তু আমি তো ওকে পছন্দ করি না।
–তাহলে কি অন্য কাউকে পছন্দ করিস??

আমি কোন কথা বললাম না।আমি চুপচাপ মাথা নিচু করে দাড়িয়ে আছি।

–জানি না তুই কাকে ভালোবাসিস।হয়তো বলতে চাচ্ছিস না।কিন্তু এর জন্য তোকে একদিন কষ্ট পেতে হবে।

আমি তো তাই পাচ্ছি।কিন্তু আপনাকে বলতে পারছি না আমার কষ্টগুলো কাকে ঘিরে।

–দেখ অন্ধ ভালোবাসা হোক আর অন্ধ অনুভূতি হোক,সেটা গোপন রাখতে নেই,আচরণে প্রকাশ করতে হয়,না হলে এ হৃদয় অজানা এক চোরাবালির মধ্যে ডুবে যায়।সেদিন খুঁজলেও তার ভালোবাসা পাওয়া সম্ভব হবে না।(একটু বেশিই অভিমান নিয়ে বলল কথাটা)

আমি কথা ঘুরিয়ে বললাম,
–আজকের আবহাওয়াটা অনেক সুন্দর তাই না।(অবশ্য আকাশটা আজ বেশ মেঘলা।)
–হ্যাঁ তা ঠিক।
–চারিদিকে কেমন মিষ্টি একটা গন্ধ ঝাছিয়ে গেছে দেখেছেন।
বিশেষ করে প্রিয় মানুষটিকে প্রপোজ করার আদর্শ একটা সময়।
–তাই…!
–হুম তাই!!
–কি জানি আমার ভাগ্যে এরকম সোনালী মূহূর্ত আসবে কি না?(মুখটা ফ্যাকাসে করে বলল)
–মন খারাপ নাকি!!!
–কেন এমন মনে হলো তোর?
–মনে হলো আপনি খুব অস্থির.!
–সত্যি আমি খুব অস্থির!!
–কেন??
–দেখ আরিফিন…
অস্থিরতার জীবনটায় প্রশান্তি দেওয়ার মতো কাউকে পেলাম না..,শূন্য রয়ে গেল জীবনটা।
(জানি কথাগুলো আমাক উদ্দেশ্য করে বলছে।এক সাগর অভিমান আমার জন্য ওর হৃদয়ে কিন্তু কি করব বলো অদ্রিতি। আমি এক অদৃশ্য বেড়াজালে আটকে গেছি।বাধা পড়ে গেছি এক ঘৃণিত চক্রান্তে।আমি যে চাইলেই তোমাকে কাছে টেনে নিতে পারছি না)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী | সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব