1. admin@banglarkota.com : admin :
  2. jakariaborkoth@gmail.com : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত : মোঃ তারেক হোসেন জাকারিয়া বরকত
  3. adnanfahim069@gmail.com : মোঃ আবরার ফাহিম : মোঃ আবরার ফাহিম
  4. ridoyahmed.news@gmail.com : মোঃ হৃদয় আহমেদ : মোঃ হৃদয় আহমেদ
  5. irsajib098@gmail.com : মোঃ সজীব হোসেন : মোঃ সজীব হোসেন
বাজারে সবজির দাম আগুন,এতে চরম বিপাকে পড়েছে সাধারণ মানুষ।দৈনিক বাংলার কথা। - Banglar Kota
বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২:২১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
আপনি কি গল্প, কবিতা, ছড়া, উপন্যাস লেখেন? কিন্তু প্রকাশের কোন মাধ্যম পাচ্ছেন না? কিছু সহজ শর্ত সাপেক্ষে সাগরিকা প্রকাশনী প্রকাশ করবে আপনার স্বপ্নের গ্রন্থটি। যোগাযোগঃ ০১৭৩১৫৬৪১৬৪

বাজারে সবজির দাম আগুন,এতে চরম বিপাকে পড়েছে সাধারণ মানুষ।দৈনিক বাংলার কথা।

হৃদয় আহম্মেদ,
  • প্রকাশিত : রবিবার, ৩০ আগস্ট, ২০২০
  • ১০৪ বার পড়া হয়েছে

 

বাজারে বেড়েছে সবধরনের সবজির দাম, এতে চরম বিপাকে পড়েছে খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ। চুয়াডাঙ্গার যে সমস্ত গ্রামে সবজি উৎপাদন বেশি হয় সেখানেই দাম অন্যবারের তুলনায় এবার অনেক বেশি। কৃষক লাভবান হলেও সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষেরা বাজারে যেয়ে সবজির দাম শুনে তারা চরম বিপদের মধ্যে পারে যাচ্ছে।

বাজারে কাচাঁমরিচের দাম পাইকারী ১৫০ – ১৬০ টাকা কেজিতে দিলেও ব্যবসায়িকরা খুচরা বাজারে ১৮০-২০০ টাকা কেজিতে কয়েক সপ্তাহ ধরেই বিক্রি হচ্ছে। বছর জুড়ে সবচেয়ে আলোচিত পেঁয়াজের দাম কিছুটা কম হলেও দিন দিন আবার বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিক্রি হচ্ছে ৪০-৪৫ টাকা কেজিতে। রসুন বিক্রি হচ্ছে ১৪০-১৬০ টাকা কেজিতে। আবার বেগুনের দাম ও খুচরা বাজারে দিন দিন বেড়ে চলছে। কয়েক সপ্তাহ থেকেই বেগুনের দাম খুচরা বিক্রি বিক্রি হচ্ছে ৪৫-৫০ টাকা কেজিতে। করল্লা এবং মূলার কাছে যাওয়ার মতো সাহস দেখাচ্ছেনা সীমিত আয়ের মানুষ। এই সবজিগুলোর দাম এর আগে এত দামে বিক্রি হতে খুবই কম দেখেছে সাধারণ ক্রেতারা। তবে তুলনামূলকভাবে বাজারে স্বাভাবিক আছে সবধরনের মাছের দাম।

অনেক ক্রেতা বাজারে এসে প্রতিবেদককে জানান , করোনার প্রাদুর্ভাবজনিত সমস্যার কারণে দীর্ঘদিন ঘরে বসে থাকার কারণে এমনিতেই অভাব চারিদিক থেকে জড়িয়ে আছে। নগদ টাকা যা ছিলো সব করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়ায় খরচ হয়ে গিয়েছে। বর্তমানে যে পরিমাণ আয় হচ্ছে তাতে করে মনভরে বাজার করার কোন উপায় নাই। আগে প্রতি সপ্তাহের জন্য ৫০০ গ্রাম কাঁচামরিচ ২০-৩০ টাকায় কিনলেও এখন ২৫০ গ্রাম কিনতে হচ্ছে ৪০- ৪৫ টাকায়। অন্যান্য সবজির দাম দেখে দাম দর করার সাহস পাচ্ছে না।

পাশাপাশি সবজির বাজারসহ যাতায়াতের জন্যও খরচ করতে হচ্ছে আগের থেকে দ্বিগুণ পরিমাণ টাকা। এমন চলতে থাকলে করোনাকালের চেয়ে বেশী ভোগান্তিতে পড়তে হবে ক্রেতা সাধারণকে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সাগরিকা প্রকাশনী | সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব